Mbps ও MBps এর মধ্যে পার্থক্য

Mbps ও MBps এর পূর্ণরূপ ও এদের মধ্যে পার্থক্য কি?

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রতিনিয়ত উন্নত হচ্ছে প্রযুক্তি বিশ্ব। বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াই কঠিন। কিন্তু এই ইন্টারনেট সম্পর্কে ছোট-বড় অনেক তথ্যই অনেকের অজানা। এরকম একটি প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে আজ। বিষয়টি অনেক মজার আবার এটি নিয়ে বিভিন্ন সময় আমরা তর্কবিতর্কেও জড়াই। বিষয়টি হলো Mbps ও MBps। কি এমন পার্থক্য তাই না, একটা “b” ছোট হাতের একটা “B” বড় হাতের! চলুন সমস্যাটির সমাধান করেই ফেলি।

এমবিপিএস কি – Mbps কি?

Mbps হল ইন্টারনেটের স্পিড পরিমাপ করার একক। Mbps যত বেশি হবে আমরা তত দ্রুত গতিতে ব্রাউজিং, ডাউনলোড এবং আপলোড করতে পারব। এইটুকু সূত্র আশা করি আমরা সবাই জানি। প্রতি সেকেন্ডে Mbps এর সাহায্যে ইন্টারনেটের স্পিড পরিমাপ করা হয়।

Mbps ও MBps এর পূর্ণরূপ কি?

Mbps এর পূর্ণরূপ হলো Megabits per second। যার অর্থ সেকেন্ডে কত bits আপলোড এবং ডাউনলোড স্পিড পাওয়া যাচ্ছে।

MBps এর পূর্ণরূপ হলো Megabytes per second। যার অর্থ সেকেন্ডে কত bytes আপলোড এবং ডাউনলোড স্পিড পাওয়া যাচ্ছে।

Mbps ও MBps এর মধ্যে পার্থক্য

আমরা যখন ইন্টারনেট কানেকশন নিতে যাই বিশেষ করে ব্রডব্যান্ড কানেকশন এর ক্ষেত্রে আমরা বিক্রেতাদের অবশ্যই জিজ্ঞেস করে থাকি কোন Mbps এর রেট কত? এবং সেই লাইনে ডাউনলোডিং ও আপলোডিং স্পিড কত Mbps-এর হবে?

তখন বিক্রেতা আমাদেরকে বিভিন্ন প্যাকেজের বিভিন্ন রেট এর কথা বলে দেয়। ধরুন বিক্রেতা আপনাকে বললো আপনাকে যে সংযুক্তি দেওয়া হবে সেটি প্রতি সেকেন্ডে ২০MB স্পিড প্রোভাইড করবে। কিন্তু সত্যি কি প্রতি সেকেন্ডে ২০ MB স্পিড পাওয়া যাবে? অর্থাৎ আমরা কি কোন ২০ MB এর ফাইল ১ সেকেন্ডে ডাউনলোড করতে পারব?

এর উত্তর অবশ্যই না। কারণ বিক্রেতা আমাদেরকে ২০ Mbps স্পিড দিলেও, আমরা প্রতি সেকেন্ডে কেবল ১.৫ MB স্পিড পেয়ে থাকি। এর কারণ কি সে বিষয়ে পরে আসছি।

এখন এই কথার অর্থ কি দোকানদার ভুল আমরা সঠিক বা আমরা ভুল দোকানদার সঠিক? আসলে এখানে বিক্রেতা এবং আমরা উভয়ই সঠিক। কিন্তু কিভাবে? যে পার্থক্যটি আমাদের নজরে আসে না সেটি হল একটির B বড় হাতের এবং আরেকটির b ছোট হাতের।

Mbps এবং MBps এই দুটি কথা বলার সময় একই উচ্চারণ হলেও দেখতে কিন্তু আলাদা। শুধুমাত্র একটি বড় হাতের B এর কারণে দুজনের মধ্যে পার্থক্যও অনেক বড়।

• Mbps এর ফুল ফর্ম হলো Megabits per second এবং

• MBps এর ফুল ফর্ম হলো Megabytes per second।

• ১ byte = ৮ bit

• এর মানে, যদি আমরা ১০ Mbps স্পিড এর প্যাকেজ ক্রয় করি তাহলে, আমাদের ডিভাইসে যে স্পিড পাওয়া যাবে তার পরিমাণ হবে (১০/৮ = ১.২৫) ১.২৫ MBps। যেহেতু, ১ byte = ৮ bit এবং ১bit = ১/৮ byte.

আলোচনাটি আপনাদের কেমন লাগলো? আশাকরি উপরের তথ্যগুলো আপনাদের কাজে আসবে। তারপরও যদি Mbps এবং MBps নিয়ে বুঝতে সমস্যা থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন। আর পোস্টটি ভাল লাগলে অবশ্যই লাইক, শেয়ার করবেন।

Leave a Comment